বুধবার , ১৮ অক্টোবর ২০২৩ | ২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. London Mirror Specials
  2. অন্যান্য
  3. অপরাধ
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খুলনা
  6. খেলাধুলা
  7. চট্রগ্রাম
  8. জেলার খবর
  9. ঢাকা
  10. তথ্য-প্রযুক্তি
  11. প্রবাসের কথা
  12. বরিশাল
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. ব্যাবসা-বাণিজ্য

স্মার্ট বাংলাদেশের স্মার্ট সৈনিক হবে আজকের শিশুরা: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিবেদক
Newsdesk
অক্টোবর ১৮, ২০২৩ ২:৫৮ অপরাহ্ণ

দেশের প্রতিটি স্কুলে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এসব প্রকল্পগুলোর চালুর মাধ্যমে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আরও গতি আসবে। স্মার্ট বাংলাদেশের স্মার্ট সৈনিক হবে আজকের শিশুরা।

বুধবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘শেখ রাসেল দিবস ২০২৩’ উদযাপন ও শেখ রাসেল পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজ আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ করেছি। আগামী দিনে আমরা স্মার্ট বাংলাদেশ করবো। আজকের শিশু-কিশোররাই আগামীর স্মার্ট বাংলাদেশ চালাবে। আমি সে ভাবে তোমাদের গড়ে তুলতে চাই।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশে শিশুদের নিরাপত্তা, খাদ্য নিরাপত্তা, পুষ্টি চাহিদা নিশ্চিত করেছি। শিশুরা উন্নত হবে। আজকের শিশুরাই আগামীর ভবিষ্যৎ।

তিনি বলেন, ধন-সম্পদ, টাকা-পয়সা থাকে না। শিক্ষা থাকে। শিক্ষাটাই মূল সম্পদ। আমাদের পরিবারের ছেলেমেয়েদের সে শিক্ষাই আমরা দিয়েছি।
পর্দার অন্তরালে থেকে আমাদের ছেলেমেয়েরা দেশের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। আমরা সন্ত্রাস, মাদকমুক্ত দেশ গড়ে তুলতে কাজ করছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ এর পর মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছিলো। এগুলো জানতোই না শিশুরা। এখন সেগুলো জানতে পারছে।

আমরা শান্তি চাই, দেশের উন্নতি চাই উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধ না হতেই ইসরাইল, ফিলিস্তিনের যুদ্ধ শুরু হয়েছে। বিশ্ব নেতৃবৃন্দের কাছে যুদ্ধ বন্ধ ও অস্ত্র প্রতিযোগিতা বন্ধের আহবান জানাচ্ছি। যুদ্ধে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয় শিশু ও নারীরা। যুদ্ধের ভয়াবহতা আমরা জানি। আমরা রিফিউজি হিসেবে ছিলাম।

শেখ রাসেলের জন্মদিন আজ, কবরে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধাশেখ রাসেলের জন্মদিন আজ, কবরে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
আমরা যুদ্ধ চাই না। বরং অস্ত্র তৈরিতে যে অর্থ ব্যয় হয় সে অর্থ বিশ্বের সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য ব্যয় করা হোক; যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই আমাদের শিশুরা আরও উন্নত হবে। আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল বাংলাদেশ। আজ থেকে ১৪ বছর আগের বাংলাদেশ কেমন ছিল? ‌১৯৯৬ সালে সরকারে এসে ডিজিটাল সিস্টেমের ব্যবস্থা করেছি, ইন্টারনেটের ব্যবস্থা করেছি। ২০০৯-এর পর থেকে আজ পর্যন্ত ডিজিটাল বাংলাদেশ আমরা গড়ে তুলেছি।

সর্বশেষ - খেলাধুলা