রবিবার , ১৯ নভেম্বর ২০২৩ | ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. London Mirror Specials
  2. অন্যান্য
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. খুলনা
  6. খেলাধুলা
  7. চট্রগ্রাম
  8. জেলার খবর
  9. ঢাকা
  10. তথ্য-প্রযুক্তি
  11. প্রবাসের কথা
  12. বরিশাল
  13. বাংলাদেশ
  14. বিনোদন
  15. ব্যাবসা-বাণিজ্য

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করে ভোটের দিন পেছানোর অনুরোধ রওশনের

প্রতিবেদক
Newsdesk
নভেম্বর ১৯, ২০২৩ ৩:৫১ অপরাহ্ণ

রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন পেছানোর অনুরোধ করেছেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ। এ সময় নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে সব দলের সঙ্গে আলোচনার জন্যও রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করেন রওশন এরশাদ।

রোববার দুপুর ১২টার দিকে রওশর বঙ্গভবনে যান, সেখানে তিনি ঘণ্টাব্যাপী অবস্থান করেন।

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বৈঠকে রওশন এরশাদের সঙ্গে বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা, রাহগির আল মাহী এরশাদ সাদ, রওশন আরা মান্নান ও বিরোধী দলীয় নেতার মুখপাত্র কাজী মামুনুর রশীদ উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গভবন থেকে বেরোনোর সময় সাংবাদিকরা রওশনের কাছে জানতে চান, নির্বাচনের তারিখ পেছানোর বিষয়ে রাষ্ট্রপ্রধান কী বলেছেন। উত্তরে জাপার প্রধান পৃষ্টপোষক রওশন এরশাদ বলেন, রাষ্ট্রপতি বলেছেন, উনি দেখবেন। তফসিল পেছানোর আহ্বান জানিয়েছি। ইনকাম ট্যাক্সের ফাইল তো লাগবে। ৩০ নভেম্বর আয়কর জমা দেওয়ার শেষ দিন। সেটা ছাড়া তো নমিনেশন দেওয়া যাবে না। সে কারণে রাষ্ট্রপতিকে বলেছি তফসিল পেছানোর জন্য।

তিনি বলেন, অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর ব্যাপারে ওরকম কিছু বলা হয় নাই। বলেছি, আলাপ আলোচনা করতে। কথা বললে অনেক সময় অনেক ভালো কিছু বের হয় সেই জন্য আলাপ আলোচনার কথা বলেছি। জাপার দলের মনোনয়ন বা প্রতীক নিয়ে কোনো কথা হয়নি।

জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব এবং সংসদে বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মসিউর রহমান রাঙ্গা বৈঠকের পর বঙ্গভবন থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, সব দলের সঙ্গে আলোচনার বিষয়টি নিয়ে রাষ্ট্রপতি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রপতিকে রওশন এরশাদ বলেছেন যথাসময়ে নির্বাচন করতে সহযোগিতার জন্য তারা প্রস্তুত রয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি বলেছেন, সরকার ও নির্বাচন কমিশন যথাসময়ে অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন নিশ্চিত করবে বলে তিনি আশা করেন।

পরে রাষ্ট্রপতির প্রেস উইং থেকে জানানো হয়, সাক্ষাতের সময় রওশন এরশাদ আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতির সার্বিক সহযোগিতা চান।

রওশন রাষ্ট্রপতিকে জানান যে তার দল, জাতীয় পার্টি নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত।

তিনি বলেন, ‘জাতীয় পার্টির একটি নির্বাচনমুখী দল। নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য আমরা ইতোমধ্যে প্রস্তুতি নিয়েছি।’

‘আমরা সংবিধানের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই নির্বাচন কমিশন যে তফসিল ঘোষণা করেছে তাকে আমরা স্বাগত জানাই’, রওশন এরশাদ বলেন।

প্রেস উইং জানায়, রওশন এরশাদ তফসিলের সময় বাড়ানোর জন্য রাষ্ট্রপতির কাছে প্রস্তাব করেন। কারণ হিসেবে তিনি জানান যে, নির্বাচনের প্রস্তুতির জন্য রাজনৈতিক দলগুলো আরো সময় দরকার। ৩০ নভেম্বর মনোনয়ন দাখিলের নির্ধারিত শেষ দিন। অন্যদিকে আয়কর রিটার্ন দাখিলেরও শেষ দিন।

রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন বলেন, দেশের গণতান্ত্রিক ধারাকে অব্যাহত রাখতে নির্বাচনের কোনো বিকল্প নেই।

রাষ্ট্রপতি বলেন, “সংবিধানকে অক্ষুন্ন রাখতে হলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নির্বাচন করতে হবে। আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে সুষ্ঠু, অবাধ ও শান্তিপূর্ণ করতে সরকার নির্বাচন কমিশনকে প্রয়োজনীয় সকল সহযোগিতা নিশ্চিত করবে।”

রাষ্ট্রপতি বলেন, দেশের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হলে গণতন্ত্রকেও সমুন্নত করতে হবে।

শনিবার নির্বাচন কমিশনে চিঠি পাঠিয়ে আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোটবদ্ধ হয়ে ভোট করার কথা জানান রওশন।

সর্বশেষ - খেলাধুলা