All Postমিডিয়া

সোমালি জলদস্যুদের মুখে বাংলাদেশের মিডিয়ার প্রশংসা

একদিন আগে সোমালি জলদস্যুদের জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এমভি আব্দুল্লাহ জাহাজের নাবিকরা। বাড়ি ফিরে জিম্মি থাকার রুদ্ধশ্বাস নানা ঘটনার বর্ণনা করেছেন তারা। জানিয়েছেন, ঘুমিয়ে থাকাকালেও তাদের মাথার ওপর ছিল একে-৪৭ এর নল। সপ্তাহে গোসল করতে দেওয়া হতো একদিন, ইত্যাদি। তবে তাদের ওপর শারীরিক নির্যাতন করা হয়েছে, এমন তথ্য কোনো নাবিক জানান নাই।

তবে নাবিকরা জানিয়েছেন, জলদস্যুরা জাহাজ থেকেই বাংলাদেশের ওপর নজর রাখছিল। আর এটি সম্ভব হয়েছিল মিডিয়ার কল্যাণে। তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জাহাজসহ মাছ ধরার ট্রলার ইত্যাদি অপহরণ করে থাকলেও বাংলাদেশের এই জাহাজ অপহরণের পর তথ্য পেতে অনেক সহজ হয়েছে বলে দাবি করেছে জলদস্যুরা।

জাহাজ এমভি আবদুল্লাহর ইলেকট্রিশিয়ান পদে কর্মরত নাবিক বিপ্লব জানিয়েছেন, সোমালি জলদস্যুরা বাংলাদেশের মিডিয়াগুলোর খুব প্রশংসা করেছেন। আহমেদ নামে এক জলদস্যুর বরাত দিয়ে তিনি বলেছেন, তোমাদের নিউজ মিডিয়াগুলো খুব ফাস্ট। আমরা তোমাদের নিউজ প্রতিদিন দেখছি। ওরা তোমাদের নিয়ে খুব চিন্তিত।

বাড়ি ফেরার পর জাহাজের মালিকপ্রতিষ্ঠান, সরকারসহ বিশেষভাবে মিডিয়ার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন বিপ্লব। বলেছেন, সাংবাদিকরা কেউই আমাদের চিনতেন না। কিন্তু এই বিপদে তারা যেভাবে এগিয়ে এসেছেন, একারণেই হয়তো আমরা জীবিত ফিরে আসতে পেরেছি।

গত ১২ মার্চ ভারত মহাসাগরে সোমালি দস্যুদের কবলে পড়ে কেএসআরএম মালিকানাধীন কয়লাবাহী জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ। ১৩ এপ্রিল মুক্তিপণ দিয়ে ৩২ দিনের জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হয় ২৩ নাবিকসহ জাহাজটি।

এ সর্ম্পকিত সংবাদ

Back to top button