All Postরাজনীতি

এবারের বাজেট পরিমিত, বাস্তবসম্মত ও জনমুখী: কাদের

এবারের বাজেটের মূল প্রতিপাদ্য সুখী-সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশের অঙ্গীকার। প্রস্তাবিত বাজেটে যে লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্জন সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বাজেট পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই বাজেট পরিমিত-বাস্তবসম্মত ও গণমুখী। নির্বাচনী ইশতিহারের সঙ্গে এই বাজেট সঙ্গতিপূর্ণ বলেও জানান তিনি। এ সময় আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে বাজেটকে স্বাগত জানান ওবায়দুল কাদের।

ওবায়দুল কাদের বলেন, চলমান সংকট দূর করে, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করে বাংলাদেশকে গতিশীল অর্থনীতিতে ফিরিয়ে নেয়া এই বাজেটের লক্ষ্য। এবারের বাজেট পরিমিত, বাস্তবসম্মত, জনমুখী এবং সাহসী। আন্তর্জাতিক ও অভ্যন্তরীন সংকট থাকলেও শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান তৈরি করেছে। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের ৩৩তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ।

তিনি আরও বলেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সুফল সবার মধ্যে পৌঁছে গেছে। দারিদ্র কমেছে। বিএনপির সময় ৪০% মানুষ দারিদ্য সীমার নীচে ছিলো। ১৪ বছর পরে তা ১৮% এ নেমে এসেছে। প্রতিবছরই বাজেটের আকার ১২-১৪ % বৃদ্ধি পায়। কিন্তু এবার গতবছরের তুলনায় মাত্র ৪% বাড়ানো হয়েছে বাজেটের আকার। চতুর্মুখী চাপ সামলাতেই এমন জনবান্ধব বাজেট। এই বাজেটে মানুষের মৌলিক অধিকার, কৃষি, চিকিৎসা ইত্যাদি বিষয়কে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ১৫ বছর আগের বাংলাদেশ আর এখনকার বাংলাদেশ এক নয়। উন্নয়নের প্রয়োজনেই গতবারের কিছুটা বেশি বাজেটের অঙ্ক। বিএনপির সময় বাজেটের আগে বিদেশে গিয়ে ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতো হতো। কিন্তু এখন আর সেই দৃশ্য নেই।

বৃহস্পতিবার দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করা হয়। প্রস্তাবিত এ বাজেটের আকার ধরা হয় ৭ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকা। বিশাল অঙ্কের এ বাজেটের ঘাটতি ধরা হচ্ছে ২ লাখ ৫১ হাজার ৬০০ কোটি টাকা। আর অনুদান ছাড়া ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়াবে ২ লাখ ৫৬ হাজার কোটি টাকা। যা মোট জিডিপির ৪ দশমিক ৬ শতাংশ।

অনেকের হাতে থাকা গোপন টাকা উদ্ধার করে অর্থনৈতিক গতিশীলতা বাড়াতেই কালো টাকা সাদা করার বিধান রাখা হয়েছে উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, যারা অন্যায়, দুর্নীতি করছে তাদের কোন ছাড় নেই। অপ্রদর্শিত অর্থ মূলধারায় আনতে কালো টাকা সাদা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এ সর্ম্পকিত সংবাদ

Back to top button